সম্প্রীতির কবিতা।।শাহনাজ পারভীন

পৃথিবীর শুরু থেকে আজ অবধি তার
সৃষ্টির প্রতিটি সুর মনে রাখে আর
ঝিঁঝিঁ পোকা, মশা, মাছি, ফড়িং, বাদুড়
সমূহ পাখির কুজন, একই সে যাদুর
শাপলা শালুক রং, পদ্ম ঝিলের
দূর্বা ঘাসের ছবি, চলনবিলের
শিশিরের ফোঁটা ঝরে ভোরে বারবার
হেমন্তে ছাতিম আনে শরত আবার
আকাশ বাতাশ মিলে সব জানাজানি
একই বৃষ্টি, রোদে করে কানাকানি।

কাকের মাংস কাক খায় না কখনো
শৃগালের ডাকে জাগে রাতের শৃগাল
বাঘ বা সিংহ জানি এক বেলা খায়
অবশিষ্ট শিকার সাথে রাখে না সীগাল

পাহাড়ের নিঃশব্দ কান্নার কথা,
ঢেউয়ের সাগর জানি ঢেউ নিয়ে আসে
মানুষ কি এমনভাবে নিঃস্বার্থ কারো
প্রকৃতির মতো কভু তারে ভালোবাসে?

আহা মানুষ!
তোমারও রক্ত লাল, চোখে সুখ হাসে
দুঃখে কান্না করো, ভয় পাও ত্রাসে।
দয়া মায়া মমতায় হন্যে আবার
মানুষকে খুঁজে ফেরো মানুষেরই হাটে!

একই শ্রষ্টার সৃষ্টির সেরা
জ্ঞানের প্রদীপ জ্বলা আলোকিত জাত
তবুও মানুষ তুমি! শ্রেষ্ঠ সিফাত!
তবে কেনো এত দ্বেষ, হানাহানি, ঘাত
প্রতিঘাতে, রক্তে ভাসে মানুষের হাত।

কবি নীলকন্ঠ জয়

সকল পোস্ট : নীলকন্ঠ জয়